রমজানে পণ্যের সংকট নেই, কারসাজি করলে ব্যবস্থা: অর্থমন্ত্রী – News Portal 24
ঢাকাSunday , ২১ জানুয়ারী ২০২৪

রমজানে পণ্যের সংকট নেই, কারসাজি করলে ব্যবস্থা: অর্থমন্ত্রী

নিউজ পোর্টাল ২৪
জানুয়ারী ২১, ২০২৪ ১১:১৮ অপরাহ্ন
Link Copied!

রমজানে যেসব পণ্যের প্রয়োজন হয়, দেশে সেসব পণ্যের পর্যাপ্ত সরবরাহ রয়েছে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

তিনি বলেন, ‘রমজানে পণ্যের কোনো সংকট নেই। কেউ কারসাজি করে দাম বাড়ানোর চেষ্টা করলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

রবিবার  (২১ জানুয়ারি) অর্থমন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অর্থমন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয়ের  জরুরি সভা শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেন, ‘রমজান আসছে। রমজানে যেসব পণ্যের প্রয়োজন হয়, দেশে সেসব পণ্যের পর্যাপ্ত সরবরাহ রয়েছে। চিন্তার কোনো কারণ নেই। তারপরও কিছু মহল চেষ্টা করবে সিচুয়েশনকে ভিন্নখাতে প্রভাবিত করে পরিস্থিতি ব্যাঘাত ঘটাতে। আমরা সে ব্যাপারে সর্তক রয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘যেভাবে প্রাইস লেভেলকে ধরে রাখা যায়, সেই কাজগুলোই সরকার করছে। আমরা মনে করি, চিন্তার কোনো কারণ নাই। দরকার হলে আমরা অনেক কঠোর পদক্ষেপের দিকে চলে যাব। দরকার হলে শাস্তিমূলক পদক্ষেপের দিকে যাব, কাউকে ছাড় দেব না।’

মৎস ও প্রানিসম্পদ মন্ত্রী আব্দুর রহমান বলেন, ‘পাঁচ মন্ত্রণালয়ের বৈঠক সরকারের সদিচ্ছার প্রকাশ। দেশের মানুষকে স্বস্তি দিতে চায় সরকার। কী কী পদক্ষেপ নিতে পারি সে বিষয়েও আলোচনা হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া, আর্থিক জরিমানা, ব্যবসায়ীর লাইসেন্স বাতিলের মতো ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বাজারে কোনো নিত্যপণ্যের ঘাটতি নেই তবে কিছু মধ্যস্বত্বভোগীদের কারসাজির কারণে মাঝে মাঝে সমস্যা হয়। সরকার এ বিষয়ে অচিরেই কঠোর পদক্ষেপ নেবে। সুনির্দিষ্টভাবে চিহ্নিত করে লাইসেন্স বা ছাড়পত্র বাতিলের মতো পদক্ষেপ নেওয়া হবে। একটু ধৈর্য ধরতে হবে।’

সভা সূত্রে জানা গেছে, সভায় বিভিন্ন পণ্যের উৎপাদন ও আমদানি পরিস্থিতির সঙ্গে চাহিদা বিশ্লেষণ করে ঘাটতি চিহ্নিত করা এবং রমজানের আগে ঘাটতি মেটাতে পণ্য আমদানি সহজ করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। পাশাপাশি ঘোষিত মুদ্রানীতি ও রাজস্ব নীতির মধ্যে সমন্বয় ঘটিয়ে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের উপায় নির্ধারণ করার বিষয়েও আলোচনা হয়। এ ছাড়া চাল, আটা, তেল, চিনি, আলু, পেঁয়াজ, গরুর মাংস, ডিম ও পোলট্রি পণ্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণে প্রতিবন্ধক হিসেবে কাজ করা কারসাজির হোতাদের চিহ্নিত করার তাগিদ দেওয়া হয়।

অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সভাপতিত্বে বৈঠকে বসেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, কৃষিমন্ত্রী আব্দুস শহীদ, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী মো. আব্দুর রহমান, বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিবরাও বৈঠকে অংশ নেন।