ডিবি পুলিশের অভিযানে নিউ সুরমা আবাসিক হোটেল থেকে ৯ নারী-পুরুষ আটক – News Portal 24
ঢাকাWednesday , ২০ অক্টোবর ২০২১

ডিবি পুলিশের অভিযানে নিউ সুরমা আবাসিক হোটেল থেকে ৯ নারী-পুরুষ আটক

নিউজ পোর্টাল ২৪
অক্টোবর ২০, ২০২১ ১১:৫৮ পূর্বাহ্ন
Link Copied!

সিলেট প্রতিনিধি:: মহানগর গোয়েন্দা পুলিশে (ডিবি)’র অভিযানে অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকার অপরাধে নগরীর সুরমা মার্কেটস্থ নিউ সুরমা আবাসিক হোটেলে নারী পুরুষসহ ০৯ (নয়) জন গ্রেফতার।

গত ১৯ অক্টোবর রাত অনুমানিক ০৯ ঘটিকায় মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক জনাব মোঃ আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে সঙ্গীয় এসআই(নিঃ) আব্দুস সালাম, এসআই(নিঃ) আতিকুর রহমান, এএসআই(নিঃ)/২০৬ আমির হোসেন আমু, কনস্টেবল/১৫৬৩ হাসান বকস, কনস্টেবল/১৮১২ আব্দুল ওয়াহিদ, কনস্টেবল/৭৩৫ জীবন মিয়া, কনস্টেবল/১৪০৫ আ্ব্দুল্লাহ আল মামুন, কনস্টেবল/১২৯৯ আনোয়ার হোসেন, কনস্টেবল/১৫৭২ জালাল মিয়া, কনস্টেবল/২১৪৫ আশিকুর রহমান এবং কোতয়ালী মডেল থানার সিয়েরা-০১ ও নারী পুলিশদের নিয়ে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের বিশেষ অভিযানে নিয়োজিত টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোতয়ালী মডেল থানাধীন সুরমা মার্কেটস্থ নিউ সুরমা (আবাসিক) হোটেলে অভিযান পরিচালনা করে।

এসময় হোটেলে অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকার অপরাধে মোঃ ইমন মিয়া (২৬), পিতা- আব্দুল গফুর, মাতা- লায়লা বেগম স্থায়ী : গ্রাম- আশিয়া (ডাক- বাংলাবাজার), উপজেলা/থানা- পটিয়া, জেলা –চট্টগ্রাম, বাংলাদেশ বর্তমান : গ্রাম- পূর্ব জিন্দাবাজার (ওয়েস্টার্ন বয়, কাপড়ের দোকান), উপজেলা/থানা- সিলেট সদর (কোতয়ালী), জেলা -সিলেট, বাংলাদেশ, তুহিন আহমদ (২৪), পিতা- আঞ্জির আলী, মাতা- স্বপ্না বেগম স্থায়ী : গ্রাম- চারিগ্রাম (ডাক- আটগ্রাম), উপজেলা/থানা- জকিগঞ্জ, জেলা -সিলেট, বাংলাদেশ,গোলাম রাব্বানী (৩৬), পিতা- মোঃ শাহজামান, মাতা- মোছা: শাহেদা বেগম স্থায়ী : গ্রাম- বড় মুসকুন্নি (ডাক- মহাশক্তি), উপজেলা/থানা- ভাংগা, জেলা -ফরিদপুর, বাংলাদেশ, মোছা: লাবন্য আক্তার (২৫), পিতা- করিম উদ্দিন, মাতা- মোছা: হাসি বেগম স্থায়ী : (আমতলী), উপজেলা/থানা- রামু, জেলা -কক্সবাজার, বাংলাদেশ, মোছা: সাথী আক্তার (২৪), পিতা- মাসুম গাজী, মাতা- শিউলি বেগম স্থায়ী : গ্রাম- নিকলাপুর, উপজেলা/থানা- রূপসা, জেলা -খুলনা, বাংলাদেশ, শেফালী বেগম (২৫), পিতা- আয়াজ আলী, মাতা- মৃত আলবি বিবি স্থায়ী : গ্রাম- সাতগাঁও (জামসী), উপজেলা/থানা- শ্রীমঙ্গল, জেলা -মৌলভীবাজার, বাংলাদেশ, জ্যোৎস্না আক্তার (২৫), পিতা- বেলাল মিয়া, মাতা- পারভীন বেগম স্থায়ী : গ্রাম- জালিয়া পালং, উপজেলা/থানা- উঁখিয়া, জেলা -কক্সবাজার, বাংলাদেশ, নয়ন মনি (২৬), পিতা- ফজলুল হক, মাতা- মেঘলা বেগম স্থায়ী : গ্রাম- দুপুরিয়া, উপজেলা/থানা- নাগরপুর, জেলা -টাঙ্গাইল, বাংলাদেশ,জেরিন আক্তার তারিন (২৩), পিতা- তাছিরুল হক, মাতা- ফরিদা বেগম স্থায়ী : গ্রাম- শিব নগর, উপজেলা/থানা- কানাইঘাট, জেলা -সিলেট, বাংলাদেশ-গণকে গ্রেফতার করেন।

তাদের গ্রেফতারকালে নিউ সুরমা আবাসিক হোটেলের মালিক আরজত চৌধুরী (৪৫) ও হোটেলের ম্যানেজার আব্বাস মিয়া (৪৭) কৌশলে পালিয়ে যায়।

প্রাথমিকভাবে জানা যায় যে, নিউ সুরমা (আবাসিক) হোটেলের মালিক আরজত চৌধুরী (৪৫) ও হোটেলের ম্যানেজার আব্বাস মিয়া (৪৭) দীর্ঘদিন যাবত পরস্পর যোগসাজশে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত হতে উঠতি বয়সী মেয়েদের তাদের হোটেলে নিয়ে আসে এবং পতিতা বৃত্তি/দেহ ব্যবসার কাজে লিপ্ত রাখে।

হোটেলের মালিক ও ম্যানেজারসহ ধৃত সকল অপরাধীদের বিরুদ্ধে কোতয়ালী মডেল থানার মামলা নং-৪৬ তারিখ- ২০/১০/২০২১খ্রিঃ ধারা- মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইন ২০১২ এর ১২/১৩ রুজু করা হয়।

সূত্র: এসএমপি