অগ্রযাত্রা পত্রিকার তৎপরতায় রায়পুরায় ‘ভুয়া সিআইডি’ প্রতারক মিজান র‍্যাবের অভিযানে আটক – News Portal 24
ঢাকাMonday , ১৪ জুন ২০২১

অগ্রযাত্রা পত্রিকার তৎপরতায় রায়পুরায় ‘ভুয়া সিআইডি’ প্রতারক মিজান র‍্যাবের অভিযানে আটক

নিউজ পোর্টাল ২৪
জুন ১৪, ২০২১ ৫:৩৮ অপরাহ্ন
Link Copied!

স্টাফ রিপোর্টার, নবীন মাহমুদ:: অনুসন্ধানমূলক জাতীয় সাপ্তাহিক পত্রিকা অগ্রযাত্রা, সাহসী অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার দক্ষতা কাজে লাগিয়ে সারাদেশে অপরাধ দমনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় গত ৪ জুন ২০২১ ইং তারিখ অগ্রযাত্রা’র অনুসন্ধানী বিভাগের কাছে তথ্য আসে জাহিদ নামের এক লোক নরসিংদীর রায়পুরা থানার বিভিন্ন গ্রামে গিয়ে নিজেকে সিআইডি ও র‍্যাব কর্মকর্তা হিসেবে পরিচয় দিয়ে অসংখ্য মানুষের টাকা হাতিয়েছে।

অগ্রযাত্রা’র এন্টি ক্রাইম ইউনিট বিষয়টি নিয়ে খুব গোপনে অনুসন্ধান শুরু করলে বেরিয়ে আসে লোমহর্ষক তথ্য। কখনো চাকরি দেবার কথা বলে,কিংবা সরকারি বরাদ্দ পাইয়ে দেবার কথা বলে এসব টাকা হাতিয়েছেন তিনি। এমনকি দরিদ্র অটোচালকদের রুট পারমিট এনে দেবার কথা বলেও অসংখ্য অটোচালকের কাছ থেকে জনপ্রতি নিয়েছেন ৫-১০ হাজার টাকা করে। আদালতে জব্দকৃত বাইক ও গাড়ি নিয়ে দেবার কথা বলেও বহু টাকা নিয়েছেন।

অগ্রযাত্রা’র অনুসন্ধানী সাংবাদিকরা গভীর অনুসন্ধান করে নিশ্চিত হয় জাহিদ কোন সিআইডি বা র‍্যাব কর্মকর্তা নয়। এমনকি তার নামও জাহিদ নয়। তার আসল নাম মিজানুর রহমান। রায়পুরা থানার অলিপুর গ্রামের কফিল উদ্দিনের ছেলে সে। শারিরীক গঠনকে কাজে লাগিয়ে রায়পুরার বিভিন্ন এলাকায় গত ২ বছর ধরে সিআইডি ও র‍্যাব পরিচয়ে চাঁদাবাজি, প্রতারণাসহ আরো নানান অপকর্ম চালিয়ে আসছিলো সে।

এমনকি এলাকার সহজ সরল লোকজন সিআইডি কর্মকর্তা মন করে তাকে ‘স্যার’ বলে সম্বোধন করতো। অবশেষে তার অপকর্মের সকল তথ্য নিশ্চিত হবার পর অগ্রযাত্রা’র এন্টি ক্রাইম ইউনিট তার ব্যাপারে অনুসন্ধানে প্রাপ্ত তথ্য ও ভুক্তভোগীদের তথ্য র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‍্যাব-১১ এর নরসিংদী ক্যাম্পকে অবগত করে।

র‍্যাব অগ্রযাত্রা’র দেয়া তথ্য যাচাই বাছাই করে ভুয়া সিআইডি মিজানের বিরুদ্ধে অভিযানের সিদ্ধান্ত নেয়। এরপর অগ্রযাত্রা’র এন্টি ক্রাইম ইউনিটের একজন সাংবাদিক পরিচয় গোপন করে ভুয়া সিআইডি মিজানের সাথে কথা বলে এবং মামলায় জব্দকৃত একটি হোন্ডা লাগবে বলে জানায়।

প্রতারক মিজান ১২ হাজার টাকার বিনিময়ে মামলায় জব্দকৃত হোন্ডা অগ্রযাত্রা’র ঐ সাংবাদিককে দিতে পারবে বলে জানায়। টাকা দিতে রাজী হয় অগ্রযাত্রা’র এন্টি ক্রাইম ইউনিটের ঐ সাংবাদিক। এরপর সেই টাকা নিতে গত ১৩ জুন রাত ৯ টায় রায়পুরার আলগী বাজার এলাকায় আসে প্রতারক মিজান।

এসময় অগ্রযাত্রা’র এন্টি ক্রাইম ইউনিটের সাংবাদিকদের সাথে ছদ্মবেশী র‍্যাব সদস্যরা টাকা নেয়ার সময় হাতে নাতে আটক করে প্রতারক মিজানকে। পুরো অভিযানে র‍্যাবকে তথ্য ও সার্বিক সহযোগিতা করে অগ্রযাত্রা’র এন্টি ক্রাইম ইউনিট।

র‍্যাব-১১ এর ক্রাইম প্রিভেনশন স্পেশাল কোম্পানী নরসিংদী ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মো. তৌহিদুল মবিন খান অগ্রযাত্রাকে জানান, সিআইডি পরিচয়ে অসংখ্য মানুষের টাকা হাতিয়ে নেয়া মিজানের পেশাই ছিলো প্রতারণা। টাকা নিয়ে সে ভুক্তভোগীর সাথে আর যোগাযোগ রাখতো না। তাকে যথাযথ আইনি প্রক্রিয়া অনুসরণ করে নিয়মিত মামলা দিয়ে রায়পুরা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে অনুসন্ধানমূলক জাতীয় পত্রিকা অগ্রযাত্রা’র সম্পাদক ও পত্রিকাটির অনুসন্ধানী বিভাগ অগ্রযাত্রা এন্টি ক্রাইম ইউনিটের পরিচালক মেহেদী হাসান অর্নব বলেন, অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার সুবাদে আমরা সোর্সদের মাধ্যমে নানান অপরাধের তথ্য পাই। সেসব তথ্য ক্রস চেক করে আমরা নিশ্চিত তথ্যগুলো প্রশাসনকে প্রেরণ করি যাতে ঐ অপরাধটি দমন হয়। দেশের স্বার্থে আমাদের এমন সাহসী তৎপরতা অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ।