তিতাসে গাজীপুর খাঁন মডেল সরকারি হাইস্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষকের উপর হামলা – News Portal 24
ঢাকাFriday , ২৩ এপ্রিল ২০২১

তিতাসে গাজীপুর খাঁন মডেল সরকারি হাইস্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষকের উপর হামলা

নিউজ পোর্টাল ২৪
এপ্রিল ২৩, ২০২১ ২:১০ অপরাহ্ন
Link Copied!

মো. নাঈম সরকার (কুমিল্লা) থেকে:: কুমিল্লার তিতাস উপজেলার গাজিপুর খাঁন মডেল সরকারি হাইস্কুল এন্ড কলেজের ইসলামিক প্রভাষক শেখ মোহাম্মদ উল্লাহ শিক্ষকের উপর হামলার অভিযোগ পাওয়া যায়।

২২ এপ্রিল বৃহস্পতিবার রাত ৮ টার সময় গাজিপুর উত্তর পাড়া জামে মসজিদে এশা ও তারাবী নামাজ পড়তে যাওয়ার সময় উক্ত গ্রামের হালিম মিয়ার ছেলে তফাজ্জল হোসেন শেখ মোহাম্মদ উল্লাহ শিক্ষক এর উপর হামলা করে, তিনি বর্তমানে তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছেন।

উক্ত বিষয়ে আহত শিক্ষক, শেখ মোহাম্মদ উল্লাহ বলেন,আমার বাড়ি খুলনা বাগের হাট, আমি দীর্ঘ ২০ বছর যাবত গাজীপুর খাঁন মডেল সরকারি হাই স্কুলে এন্ড কলেজ শিক্ষকগত পেশায় আছি। আমি গাজীপুর গ্রামে ভাড়া থাকি,আমার ছোট ছেলে তানভির মাঠে খেলতে গেলে প্রতিবেশী হালিম মিয়ার ছেলে তফাজ্জল আমার ছেলে কে মারার জন্য দৌড়িয়ে আসলে, আমি তফাজ্জল এর মায়ের কাছে বিচার দেয়, আপনার ছেলে কে ভবিষ্যতের জন্য সাবধান করে দিবেন তা না গুন্ডা হয়ে যাবে।

রাতে আমি ও আমার ছেলে এশা ও তারাবী নামাজ পড়ার জন্য মসজিদে যাওয়ায় সময় তফাজ্জল রাস্তায় দাড়িয়ে আমাকে বলে, আপনে কেন আমার মায়ের কাছে বিচার দিছেন, আমি বলনাম তুমি আমার ছেলে কে মারবে তাই বিচার দিছে, তফাজ্জল আমার ছেলেকে আমার সামনে মারতে গেলে, আমি বলি এক থাপ্পড় দিব কিন্তু তখন তফাজ্জল আমাকে গালি দিয়ে ধাক্কা মেরে ফেলে দেয় এবং পকেট থেকে স্টাল জাতীয় একটা কি যেন বার করে,চাপ দিলে তা লাম্বা হয়ে যায়।
তা দিয়ে সজোরে আমার মাথায় আঘাত করলে আমার মাথায় ও শরীরে রক্তে ভরে গেল আমি ফরহাদ ভাইয়ের কাছে গেলে সে বাড়ি না থাকায় তার ছোট ভাই ফয়সাল আমাকে চিকিৎসা জন্য তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।

এবিষয়ে তফাজ্জল মা বলেন,মাষ্টার সাব আমাদের থেকে রোজ দুধ নেয় মাষ্টারের ছেলে আমার বাড়িতে দুধ নিতে আসলে তার সম-বয়সী এক ছেলে দুধের বতল নিয়ে দুষ্টুমি করে পরে দুধ দিয়ে দেয়। মাষ্টার ফোনে আমাদের কাছে বিচার দেয় ও যা তা বলে,
আমি আমার ছেলেকে শাসন করি।
রাতে মাষ্টার সাব ও তার ছেলে নামাজে যাওয়ার সময় আমার ছেলে তফাজ্জল মাস্টার ও তার ছেলে কে জিজ্ঞাসা করে আমি তকে মেরেছি তর বাবা কে আমার মায়ের কাছে বিচার দিলো? এই বলে রাগারাগি করলে মাস্টার সাব তখন আমার সামনে আমার ছেলেকে মারবি বলে তফাজ্জল কে থাপ্পড় দিলে সে মাটিতে পরে যায়, এবং হাতের কাছে কাট দিয়ে মাস্টার সাব কে অনাকাঙ্ক্ষিত ভাবে মাথায় আঘাত করে।

তবে এই বিষয়টি শিক্ষক-শিক্ষার্থী রাজনৈতিক মহল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তিব্রনিন্দাপ প্রতিবাদ জানায়।